রবিবার, ০৭ মার্চ ২০২১, ০৫:২৪ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
দেবীদ্বার সবুজের বুকে হলুদ রাঙ্গা হাসি দেবীদ্বারে ‘নিজেরা করি’ সংস্থার উদ্যোগে ভূমিহীন ও দরিদ্র জনগোষ্ঠীকে করোনা ভ্যাকসিন গ্রহনে উদ্ভূদ্ধ করণ ও বিনামূল্যে নিবন্ধন করে যাচ্ছে দেবিদ্বারে মুজাক্কির হত্যাসহ সারাদেশে সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদের কর্মবিরতি দেবিদ্বার উপজেলা পরিষদ উপ- নির্বাচনে নৌকা’র বিশাল ব্যাবধানে আবুল কালাম আজাদ বিজয়ী সুষ্ঠ নির্বাচনের দাবীতে বিএনপি প্রার্থী তারেক মুন্সীর সংবাদ সম্মেলন নৌকার পক্ষে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের প্রচার- প্রচারনা নৌকার প্রার্থী কালামের মতবিনিময় সভায় সাংবাদিকদের সহযোগীতা ও পরামর্শ কামনা নেশার টাকার জন্য মুরাদনগরে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন দেবিদ্বারে বিয়ের প্রলোভনে কিশোরী অন্তঃসত্বা; পিতৃত্বের দাবীতে আদালতে মামলা মুরাদনগরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বিধবাকে ধর্ষন
নেশার টাকার জন্য মুরাদনগরে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন

নেশার টাকার জন্য মুরাদনগরে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন

শাহিদুল ইসলামঃ
কুমিল্লার মুরাদনগরে মাদক সেবনের টাকা না দিতেক পারায় স্ত্রী’কে বটি-দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে এক পাষান্ড স্বামী। শনিবার দিবাগত রাত ৩টায় উপজেলার পরমতলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আখি আক্তার(২৮) পরমতলা খালপাড় গ্রামের মনু মিয়ার মেয়ে। ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ঘাতক স্বামী সুমন মিয়া (৩০) ও তার বন্ধু সাদ্দাম হোসেন (২৮) কে আটক করেছে মুরাদনগর থানা পুলিশ। ঘাতক সুমন দেবিদ্বার উপজেলার রাজামেহার গ্রামের শরীফ মিয়ার ছেলে এবং সাদ্দাম হোসেন পরমতলা গ্রামের আব্দুল মালেকের ছেলে। তাদের সংসারে ১টি ছেলে ও ২টি মেয়ে সন্তান রয়েছে।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, ১০ বছর আগে আখি আক্তারের সাথে সুমন মিয়ার পারিবারিক ভাবে বিয়ে হলেও সুমন তার শ্বশুর বাড়ীতে বসবাস করত। বিয়ের আগে থেকেই মাদকাসক্ত সুমনের মাদক সেবনের বিষয় নিয়ে তাদের সংসারে প্রায়ই ঝগড়া বিবাদ লেগেই থাকতো। শনিবার রাতে স্ত্রীর কাছে নেশা করার জন্য টাকা চায় সুমন। টাকা দেওয়ার বিষয়ে আপত্তি জানালে দুজনের মাঝে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সুমন মিয়া একটি ধারালো বটি দা নিয়ে আখি’র ঘাড়ে ও পেটে এলোপাথারি কুপিয়ে মারাত্বক জখম করে। আখির আর্ত-চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে দেবিদ্বার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। কুমেকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত দেড়টার সময় আখির মৃত্যু হয়। বিয়ের পর থেকেই সুমন ঘরজামাই থাকতো। কোন কাজকর্ম করতে চাইতো না। নেশা করতে টাকা দেয়ার জন্য সে প্রতিনিয়ত তার স্ত্রীকে মারধর করতো।

মুরাদনগর থানার অফিসার ইনচার্জ সাদেকুর রহমান বলেন, নিহতের লাশ কুমেক হাসপাতালে ময়নাতদন্ত করা হচ্ছে। হত্যার ঘটনায় ঘাতক সুমন ও তার বন্ধু সাদ্দাম হোসেন কে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ বিষয়ে মামলা পক্রিয়াধীন রয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে সোসাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সকল সত্ব : সকালের বাংলাদেশ কতৃক সংরক্ষিত । 
Desing & Developed BY:মাহফুজ মিডিয়া লিমিটেড -01846-764625